ইসলামী ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড,পাসপোর্ট ছাড়া ডুয়েল কারেন্সি কার্ড,ইসলামী ব্যাংক গোল্ড ডেবিট কার্ড,ইসলামী ব্যাংক ভিসা কার্ড চার্জ,সিটি ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি কার্ড,ইন্টারন্যাশনাল ভিসা ডেবিট কার্ড,
visa card


ইসলামী ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড খুইব গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এটি ছাড়া আপনি অনলাইন থেকে শপিং, এবং কোন ধরণের কাজ করতে পারবেন না। তাই এটা সকল ব্যাংক ইউজার দের জন্য এটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে থাকে। তবে ইসলামী ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড  নিতে চাইলে কিছু নিয়ম মেনে নিতে হবে।  তাদের প্রথম শর্ত হলো আপনাকে তাদের পাসপোর্ট কপি দিতে হবে।  

এই ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড ব্যবহার করে আপনি ফেসবুক বোস্টিং, ইউটিউব বোস্টিং, ওয়েবসাইট এর জন্য এড রান ইত্যাদি যে কোন ধরণের কাজ করতে পারবেন। দেশ বিদেশের যে কোন কোম্পানি থেকে আপনি এই কার্ড ব্যবহার করে পণ্য কিনতে পারবেন।  বর্তমান সময়ে সকল মানুষের এই কার্ড এর উপর চাহিদা রয়েছে।  তাই বলা যায় এই কার্ড যারা অনলাইনে কাজ করে থাকে তাদের জমা বিশেষ ভূমিকা রেখে থাকে। 


পাসপোর্ট ছাড়া ডুয়েল কারেন্সি কার্ড


পাসপোর্ট ছাড়া ডুয়েল কারেন্সি কার্ড নেওয়া কোন ভাবে সম্ভব না ইসলামী ব্যাংক থেকে।  তাই তাদের পলিসি অনুযায়ী আপনাকে কার্ড নিতে হলে অবশ্যই পাসপোর্ট জমা দিতে হবে।  তবে কিছু কিছু ব্যাংক রয়েছে যারা কার্ড দিয়ে থাকে কিছু পলিসি অনুযায়ী তাদের থেকে আপনি কার্ড সেবাটি গ্রহণ করতে পারবেন।  


যদি আপনাদের কোন ব্যাংক থেকে কি ভাবে কার্ড নিতে হয় তা জানার থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট বলবেন। আমি সে সকল বিষয় নিয়ে আপনাদের বিস্তারিত বলব। তবে পাসপোর্ট দিয়প ডুয়েল কারেন্সি কার্ড নিতে হয় ইসলামী ব্যাংক থেকে।  জনপ্রিয় ব্যাংক এর মধ্যে একটি হলো ইসলামী ব্যাংক।  এখানে প্রায় ৯৯% মানুষ একাউন্ট রয়েছে বলে বিভিন্ন জরিপে জানা গেছে। 


ইসলামী ব্যাংক গোল্ড ডেবিট কার্ড


ইসলামী ব্যাংক গোল্ড ডেবিট কার্ড সেবা চালু করেছেন ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড সকল গ্রহকদের সুবিধা জন্য।  এটি ব্যবহার করে আপনি যে কোন দেশে গিয়ে যে কোন জায়গায় ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়া আমাদের দেশের এটিএম এর সাহায্য নিয়ে।  আপনি শপিং মল, হাসপাতাল, রেস্টুরেন্টে, ইত্যাদি জায়গায় এটা ব্যবহার করতে পারবেন।  


ইসলামী ব্যাংক গোল্ড ডেবিট কার্ড এত সুবিধা রয়েছে সকল গ্রহকদের জন্য সেটা ব্যাবহার না করলে কোন ভাবে বুঝতে পারবেন না। আমাদের দেশে এমন একটা সময় আসবে যখন কাগজের টাকা অচল হয়ে যাবে। তখন কার্ড দিয়ে সব কিছু ক্রয় বিক্রয় করতে হবে।  হয়ত এখন খুবই অল্প পরিমাণ মানুষ এই কার্ড ব্যাবহার করতে সক্ষম কারণ এটা নিতে হলে অনেক পলিসি মেনে নিতে হয়। 



ইসলামী ব্যাংক ভিসা কার্ড চার্জ


ইসলামী ব্যাংক ভিসা কার্ড চার্জ সহ সকল যাবতীয় তথ্য নিচে বর্ণনা করা হল।


★ ইসলামী ব্যাংক ভিসা কার্ড চার্জ বছরে মাত্র ৩০০ টাকা এবং সাথে ১৫℅ ভ্যাট কাটবে।


★ আপনি যদি পিন পরিবর্তন করতে চান আপনার ভিসা কার্ড এর তাহলে তার জন্য ৫০ টাকা চার্জ দিতে হবে এবং সাথে ৭.৫০ টাকা ভ্যাট দিতে হবে। 


★ প্রথম বছর পর পরবর্তী বছরে কার্ড নিতে চাইলে রিপ্লেসমেন্ট চার্জ ২০০ টাকা দিতে হবে।



ইসলামী ব্যাংক ডেবিট কার্ড সুবিধা


ইসলামী ব্যাংক ডেবিট কার্ড সুবিধা অনেক গুলা রয়েছে তার মধ্যে কিছু সুবিধা আপনাদের সামনে তুলে ধরা হলো।


★ আপনি প্রতিদিন পণ্য কিনতে এবং বিক্রি করতে পারবেন ১ লক্ষ টাকা POS ও Ecommerce মিলে। তবে আপনি লেনদেন করতে পারবেন আনলিমিডেট। 


★ সকল কার্ড এর নিয়ম অনুযায়ী আপনি এটিএম থেকে প্রতি দিন ৫০ হাজার টাকা তুলতে পারবেন।  তবে আপনি ২৪ ঘন্টায় লেনদেন করতে পারবেন ১০ বার সর্বোচ্চ।


★ আপনি যদি অনলাইনে কাজ করেন তাহলে সেখানে আপনি যে কোন কাজে এটি ব্যাবহার করতে পারবেন।  যেমন ধরনের ফেসবুক  ইউটিউব, গুগল,যে কোন কাজে আপনি এটা ব্যাবহার করে কাজ করতে পারবেন।



এবি ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড


এবি ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড আপনি ফ্রিতে নিতে পারবেন।  আপনি যদি স্টুডেন্ট একাউন্ট করেন তাহলে আপনি অনেক কিছু সুবিধা নিতে পারবেন।  সাধারণত সকল স্টুডেন্ট অনলাইন মধ্যে কাজ করে ইনকাম করে থাকে। যেমন ফেসবুক বোস্টিং থেকে শুরু করে অনলাইন থেকে পণ্য ক্রয় সকল কিছু এই কার্ড দিয়ে করতে পারবেন।


এবি ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড আপনি ইউজ করতে পারবেন দেশের বাহিরে গিয়ে। হজ্জে গেলে বা অন্য যে কোন দেশে গেলে আপনি এটা ব্যবহার করতে পারবেন।  তাছাড়া বিশ্বের বড় ই-কমার্স ওয়েবসাইট আমাজন থেকে পণ্য কিনতে পারবেন কোন রকম সমস্যা ছাড়াই।  আপনি কার্ড নিতে এবি ব্যাংক সাথে যোগাযোগ করে কার্ড জন্য আবেদন করুন।  


সিটি ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি কার্ড


সিটি ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি কার্ড আপনি নিতে পারবেন মাত্র ৫০০ টাকায়।  বাংলাদেশ সিটি ব্যাংকের এই কার্ড আপনি যে কোন জায়গায় ব্যাবহার করতে পারবেন।  এই কার্ড নেওয়ার সময় আপনাকে কোন কিছু জমা দিতে হবে না।  কোন কিছু মূল্য ছাড়াই ডুয়েল কারেনসি মাস্টার কার্ড পাবেন ব্যাংক থেকে।


সকল কার্ড এর মত এই কার্ড টিও আপনি ব্যাবহার করতে পারবেন সকল মার্কেটপ্লেসে এবং দেশের বাহিরে সব জায়গায়।  বর্তমানে দেশ উন্নত হচ্ছে তাই এখন বিদেশ এর মত আমাদের দেশেও এখন কার্ড এর ব্যাবহার শুরু হয়েছে।  ভাল হোটেল, রেস্তোরাঁ, হাসপাতাল,দোকান,শপিং মল ইত্যাদি এখন কার্ড ব্যাবহার করা হচ্ছে।  আপনি প্রয়োজনীয় তথ্য নিশ্চিত করে আবেদন করে কার্ড সংগ্রহ করুন সিটি ব্যাংক লিমিটেড থেকে। 


ইন্টারন্যাশনাল ভিসা ডেবিট কার্ড 


ইন্টারন্যাশনাল ভিসা ডেবিট কার্ড বলতে ঐ কার্ড কে বুঝায়া যেটা আপনি যে কেন জায়গায় ব্যাবহার করতে পারবেন।  বর্তমানে এমন কার্ড আমাদের দেশের বিভিন্ন ব্যাংক থেকে সংগ্রহ করা যায়।  আপনি সঠিক তথ্য দিয়ে ব্যাংক থেকে সংগ্রহ করতে পাবেন আপনার ইন্টারন্যাশনাল ভিসা ডেবিট কার্ড।  


ইন্টারন্যাশনাল ভিসা ডেবিট কার্ড যে কোন দেশে সাপোর্ট করবে এবং আপনি যেখানে যান না কেন এটার সাহায্য নিয়ে টাকা লেনদেন করতে পারবেন।  বছরে কম টাকা চার্জ দিয়ে ব্যাবহার করুন এই কার্ড টি। এটা আপনি যদি নিতে চান তাহলে আপনার পাসপোর্ট সাথে আরো ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হতে পারে। 


আশা করি আপনার আর্টিকেল টা পড়ে আপনি কিছু না কিছু উপকৃত হয়েছেন। যদি আপনি উপকৃত হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন এবং কোন মন্তব্য থাকলে অবশ্যই সেটা বলবেন। 


Post a Comment

Previous Post Next Post